বৃহস্পতিবার , সেপ্টেম্বর ২৪ ২০২০
Breaking News

সারা শরীর জুড়ে টিউমারে আক্রান্ত দেলোয়ার বাঁচতে চায়

স্টাফ রিপোর্টার : দশ বছর বয়সে দেলোয়ার হোসেন মল্লিকের (২৮) মাথার পিছনে টিউমার ধরা পড়ে। অতি দরিদ্র পরিবারের সন্তান দেলোয়ারের অর্থাভাবে সু-চিকিৎসা হয়না। মানুষের কাছে হাত পেতে দশ বছর বয়সে বরিশাল মেডিকেলে প্রথম মাথায় অপারেশন করে টিউমার অপসারন করা হলেও দুরারোগ্য ব্যাধি পিছু ছাড়ে না। আস্তে আস্তে টিউমার তার সারা শরীর জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে ভয়াবহ আকার ধারন করে। ঘাড় থেকে বিশাল আকৃতির টিউমার পীঠ হয়ে কোমরের নিচ অবধি ঝুলে যায়। সারা শরীরে ভয়াল টিউমারের বোঝা নিয়ে ধুঁকে ধুঁকে মৃত্যুর সাথে লড়াই করে বেঁবে আছে দেলোয়ার।

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার ছোটশৌলা গ্রামের অতিদরিদ্র কৃষক মালেক মল্লিকের ছেলে দেলোয়ারের পরিবারের পক্ষে চিকিৎসা করানো সম্ভব হ্েচ্ছনা। এমন অবস্থায় অসুস্থ দেলোয়ারকে নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে তার পরিবার।

দেলোয়ারের কৃষক বাবা মালেক মল্লিক জানান, দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়ার সময় দেলোয়ারের মাথার পিছনে প্রথম টিউমার আক্রান্ত হয়। দিনদিন টিউমারটি বড় হতে থাকলে মানুষের কাছে হাত পেতে বরিশালে অপরেশন করাই। ওই সময়েই শিশু দেলোয়ারের লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়। অপরেশনের ক্ষত শুকাতে না শুকাতে সারা শরীর জুড়ে নতুন করে টিউমার ছড়িয়ে পড়ে। দীর্ঘ ১৮ বছরে ওই টিউমার ভয়াবহ আকার ধারন করে মাথার পিছন হতে হাঁটু অবধি ঝুলে পড়ে। অর্থ-কষ্টে দেলোয়ারের আর চিকিৎসা হয়না।

সম্প্রতি দেলোয়ারের পরিবার মানুষের কাছে হাত পেতে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টিউমার বিশেষজ্ঞ ডা. মঞ্জুর রহমানের কাছে চিকিৎসা করান। চিকিৎসক জানিয়েছেন ধাপে ধাপে অপারেশনের মাধ্যমে দেলোয়ারের চিকিৎসা করা সম্ভব। এতে দীর্ঘ সময় ও অনেক অর্থের প্রয়োজন। কিন্তু দরিদ্র পরিবারের পক্ষে এ ব্যায় বহুল চিকিৎসা করানো আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্নের সমান। বর্তমানে দেলোয়ার চট্রগ্রামে এক নিকট আত্মীয়র বাসায় সু-চিকিৎসার আশায় অবস্থান করছে। চলতি মাসের ৩০ তারিখ হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে তাকে। কিন্তু এমন অবস্থায় চিকিৎসার ন্যূনতম অর্থও জোগার করতে পারেনি পরিবারটি। ফলে অসুস্থ দেলোয়ারের হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা অনিশ্চিত। দরিদ্র দেলায়ারের পরিবার প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের বিত্তবান সহৃদয় মানুষের কাছে চিকিৎসার অর্থের জন্য আকুল আবেদন জানিয়েছেন।

 

যোগাযোগের ঠিকানা Ñ মো. মালেক মল্লিক( টিউমার আক্রান্ত দেলোয়ারের বাবা)

গ্রাম- ছোট শৌলা, ইউনিয়ন- মিরুখালী, উপজেলা- মঠবাড়িয়া, জেলা- পিরোজপুর।

মোবাইল- ০১৭২৬১৫৬৯৮৯ ( বিকাশ নম্বর), ব্যাংক হিসাব নম্বর- ০২০০০০৮৮৭১১২৫, অগ্রণী ব্যাংক

মিরুখালী শাখা, মঠবাড়িয়া, পিরোজপুর।

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে মালেক সিকদার (৪৮) নামে …

বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টারঃ  বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করার অভিযোগে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার রবিউল ইসলাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!