মঠবাড়িয়াশনিবার , ১৮ এপ্রিল ২০২০
  1. আন্তর্জাতিক
  2. ইতিহাস-ঐতিহ্য
  3. খেলাধুলা
  4. জাতীয়
  5. প্রতিবেদন
  6. ফটো গ্যালারি
  7. বিচিত্র খবর
  8. বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি
  9. বিনোদন
  10. ভিডিও গ্যালারি
  11. মঠবাড়িয়ার খবর
  12. মতামত
  13. মুক্তিযুদ্ধ
  14. রাজনৈতিক খবর
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মঠবা‌ড়িয়ায় ত্রাণ দেয়ার না‌মে নারী ভাইস চেয়ারম্যা‌নকে প্রতারণা : থানায় জিড‌ি

Mathbariaprotidin
এপ্রিল ১৮, ২০২০ ৯:৫৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রতারণার অভিযোগ এনে উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান। বৃহস্পতিবার রাতে ওই জিডি করেন নারী ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাড. নাছরিন জাহান।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, গত ১৫ এপ্রিল সকাল ১১টার দিকে  উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন থেকে নারী ভাইস চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে ফোন দিয়ে একটি মোবাইল নাম্বার (০১৭১৫৪৯২১১১) দিয়ে বলা হয়  ওই নাম্বারে ১০ জন দুস্থ লোকের তালিকা দিতে। আর ওই নাম্বারটি রেডক্রিসেন্ট পিরোজপুর জেলা অফিসের এক কর্মচারীর নাম্বার।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, নারী ভাইস চেয়ারম্যান ওই নাম্বারে ফোন দিলে  মামুন নামে এক ব্যক্তি নিজেকে রেডক্রিসেন্ট পিরোজপুর জেলার কর্মচারী হিসাবে পরিচয় দেয়। নারী ভাইস চেয়ারম্যান তার কাছে নামের তালিকা পাঠানোর সময় চায়। কিন্তু এর মধ্যে ওই দিন বেলা ৩টা ১৩ মিনিটের সময় উপজেলা চেয়ারম্যান পুনরায় নারী ভাইস চেয়ারম্যানের মোবাইল ফোনে ফোন দিয়ে জানান, দ্রত ওই নাম্বারে তালিকা পৌঁছে দিতে। ওই দিনের মধ্যে তালিকা না দিলে তা গ্রহণ হবে না। পরে নারী ভাইস চেয়ারম্যান মামুন নামের ভুয়া পরিচয় দানকারীর কাছে ১০টি নামের তালিকা দিলে সে নারী ভাইস চেয়ারম্যানকে তার এমডির সাথে কথা বলে আরও ১০০-১৫০ লোকের প্যাকেজ দিতে পারবে বলে জানান। পরে সে তার এমডির মোবাইল নাম্বার ০১৩১০৭৭১৪১৮ দেয়। ওই নাম্বারে ফোন দিলে সে নিজেকে আকবর নামে পিরোজপুর রেডক্রিসেন্টের এমডি পরিচয় দেয়। এ সময় ওই ভুয়া এমডি জানায়, প্রতিটি নামের প্যাকেজে ৩০ কেজি চাল, ৫ কেজি ডাল, ৫ কেজি তেল ও নগদ অর্থ প্রদান করা হবে। আর এ জন্য প্রতিটি নামের বিপরীতে একটি করে ৭০০ টাকার ফর্ম ক্রয় করতে হবে। আর এ জন্য তাদের দেয়া ০১৮৭৩১৯৫৯১৩ নাম্বারে নারী ভাইস চেয়ারম্যান ব্যক্তিগত মোবাইলের বিকাশে থাকা ১৬,৩০০ টাকা পাঠিয়ে দেন।

নারী ভাইস চেয়ারম্যান পরবর্তীতে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি উক্ত নাম্বার জেলা রেডক্রিসেন্টের কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারীর নয় বলে জানান।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী  ওই নারী ভাইস চেয়ারম্যান জানান, আমি উপজেলা চেয়ারম্যানের কথামতো প্রতারিত হওয়ায় এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য মঠবাড়িয়া উপজেলা চেয়ারম্যান   মো. রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদের সাথে মোবাইলে ফোন দিলে তিনি রিসিভ করেননি।

 

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
error: Content is protected !!