রবিবার , ফেব্রুয়ারি ২৮ ২০২১
Breaking News

মঠবাড়িয়ায় ৫ নারী যেভাবে জয়িতা হলেন

ইসরাত জাহান মমতাজ : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার আনাচে কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অসহায় নারীরা সমাজের সকল বাঁধা বিপত্তি অতিক্রম করে এবছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছেন ৫ নারী। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী সাম্মী আক্তার, শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে সাফল্য পাওয়া মাহামুদা বেগম, সফল জননী হিসেবে করুনা রানী কর্মকার, সংগ্রামী নারী হিসেবে মাকসুদা আক্তার ও সমাজ উন্নয়নে সাহিদা বেগম সম্মাননা পেয়েছেন। তাই তারা উপজেলার শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা নির্বাচন করেন।
অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী সাম্মী আক্তার দরিদ্র পিতার মেয়ে হওয়ায় বেকার এক পাত্রের সাথে বাল্য বিয়ের শিকার হন। ২ সন্তান হওয়ার পরে স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করে সাম্মীকে তালাক দেয়। সন্তানদের নিয়ে ঝিয়ের কাজ থেকে শুরু করে রাস্তায় ইটভাঙ্গা, পান-সিগারেটের দোকান করতে গিয়ে নানা নির্যাতন ও সামাজিক বঞ্চনার সম্মুখিন হন। এসময় এক ভাবীর সহায়তায় বিউটি পার্লারের কাজ শিখে অন্যের পার্লারে চাকরী করে নিজের কিছু পুঁজি ও ভাবীর দেয়া অর্থ নিয়ে শুরু করে নিজ নাম বিউটি পার্লার।  সে আজ স্বাবলম্বী হয়ে অসহায় নারীদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। মাহামুদা বেগম বাল্য বিয়ের শিকার হয়েও মধ্যযুগীয় কুসংস্কার অতিক্রম করে সংসারের পাশাপাশি লেখা পড়া করে শিক্ষকতা করছেন তাই শিক্ষা ও চাকুরীতে সফল নারী। করুনা রানী কর্মকার বিধবা হয়ে সংসারের টানা পোড়নের মধ্য দিয়ে ওয়ার্কশপ করে দুই ছেলেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ও এক মাত্র মেয়েকে বিএম কলেজে পাশ করিয়েছেন। তার বড় ছেলে টেক্সটাইল কোম্পানির এমডি অন্য ছেলে নিজে ভাস্কর্য তৈরীর প্রতিষ্ঠার করেছেন ও মেয়ে মাস্টার্স পাশ করায়ে সফল জননী হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন। পরিবারের নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে মাকসুদা আক্তার আজ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান। আর্থিক অ-স্বচ্ছল সাহিদা বেগম রাত দিন হাটে মাঠে ছুটে বাল্যবিবাহ বন্ধ, সালিস, সঠিক পরামর্শ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হেয় কাউন্সিলিং ও  সমাজ সেবামূলক কাজ করেছে। এ কারণে আজ সাহিদা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হয়ে এলাকায় অসামান্য অবদান রাখছেন। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের জয়িতাদের চিহ্নিত করে তাদের যথাযথ সম্মান, স্বীকৃতি ও অনুপ্রেরণা সমাজের অসহায় নারীদের মধ্যে আস্থা সৃষ্টি করছে এবং নিজেদের সমাজ উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে। এতে করে নারী উন্নয়নে গতি বৃদ্ধি, নারীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিসহ নারী-পুরুষের বৈষম্য হ্রাসসহ নারীর ক্ষমতায়ন এবং পর্যায়ক্রমে দেশের দারিদ্র বিমোচন ঘটিয়ে দেশ আজ মধ্যম আয়ে পৌঁছাতে পেরেছেন।

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় চাঞ্চল্যকর গৃহবধু সুখী হত্যা মামলার গ্রেপ্তারকৃত আসামী রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : মঠবাড়িয়ায় চাঞ্চল্যকর গৃহবধু সুমী ওরফে সুখী (২৫) হত্যা মামলায় প্রেপ্তারকৃত আসামী জালাল …

মঠবাড়িয়ায় ভোটারদের মাঝে স্মার্ট কার্ড বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ২০১৯ সালের হালনাগাদকৃত ভোটারদের মাঝে স্মার্ট কার্ড বিতরণ শুরু হয়েছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!