শুক্রবার , আগস্ট ৭ ২০২০
Breaking News

মঠবাড়িয়ায় ১১ ইউনিয়নে ১১ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে একটি করে প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন কেন্দ্র ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন। গত সোমবার উপজেলা প্রশাসন ১১টি ইউনিয়নের নয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও দুটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হিসেবে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, সরকার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নানা ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে। বিশেষ করে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে বিভিন্ন এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হচ্ছে। বিদেশ বা দেশের এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় যাওয়া মানুষকে হোম কোয়ারেন্টাইনে ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হচ্ছে। সরকারের নির্দেশ প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র করার জন্য উপজেলা প্রশাসন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের কাছে পরামর্শ চায়। এরপর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী ১১টি ইউনিয়নে একটি করে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র ঘোষণা করা হয়। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলোতে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে মঠবাড়িয়ায় আসা মানুষদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। উপজেলা প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রে থাকা ব্যক্তিদের দেখভাল করবেন।

কেন্দ্রগুলো হলো–তুষখালী ইউনিয়নের ২ নম্বর উত্তর বড়মাছুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ধানীসাফা ইউনিয়নের সাফা ডিগ্রি কলেজ, মিরুখালী ইউনিয়নের মিরুখালী মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র, দাউদখালী ইউনিয়নের রাজারহাট শহীদ বাচ্চু মাধ্যমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন শেল্টার, মঠবাড়িয়া ইউনিয়নের মধ্য মিঠাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, টিকিকাটা ইউনিয়নের টিকিকাটা নূরিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, বেতমোড় রাজপাড়া ইউনিয়নের বোতমোড় রাজপাড়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের ডা. রুস্তম আলী ফরাজী ডিগ্রি কলেজ, সাপলেজা ইউনিয়নের তাফালবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন শেল্টার, হলতা গুলিসাখালী ইউনিয়নের গুলিসাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বড়মাছুয়া ইউনিয়নের বড়মাছুয়া ইউনাইটেড হাই ইনস্টিটিউট।

মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলী হাসান বলেন, নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা ব্যক্তিদের মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে। লকডাউনের মধ্যেও মানুষ এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় আসা যাওয়া করছেন। এ কারণে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে রোধে বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা ব্যক্তিদের আমরা প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দেশের যেকোনো এলাকা থেকে মঠবাড়িয়া আসা ব্যক্তিদের ১৪ দিন প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। এ কারণে সরকারের নির্দেশে প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র ঘোষণা করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলোর সার্বিক দায়িত্বে থাকবেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রিপন বিশ্বাস বলেন, প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলো ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের প্রস্তাব অনুযায়ী করা হয়েছে। সেখানে সার্বক্ষণিক আনসার সদস্য বা গ্রাম পুলিশ মোতায়েন থাকবে। প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলো উপজেলা প্রশাসন দেখভাল করবে।

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় গাঁজাসহ আটক-২

স্টাফ রিপোর্টারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আব্দুল কাদের (১৯) ও শাওন (২৫) নামে দুই জনকে গাঁজাসহ আটক করেছে …

মঠবাড়িয়ায় কাঁচা রাস্তা পাকা করণের দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বান্ধাঘাটা-বলেশ^র সড়ক সংলগ্ন সুধীর হালদার বাড়ি থেকে কাটাখাল – …

error: Content is protected !!