বৃহস্পতিবার , সেপ্টেম্বর ২৪ ২০২০
Breaking News

মঠবাড়িয়ায় সরকারি সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ করছে প্রভাবশালীরা!

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রশাসনের নাকের ডগায় পৌর শহরের সরকারি সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ করছে ভূমিদস্যুরা। জমির মালিকানা নিয়ে চলছে রশি টানাটানি। এ সকল সম্পত্তি কার–এ নিয়ে পৌর কর্তৃপক্ষ, ভূমি অফিস, জেলা পরিষদ ও পানি উন্নয়ন বোর্ড পরস্পরের ওপর অভিযোগ চাপিয়ে দিচ্ছে। এ সুযোগে ভূমিদস্যুরা  সম্পত্তি  দখল করে নির্মাণ করছে পাকা স্থাপনা।

পৌর শহরের ৩নং ওয়ার্ডের স্লুইসগেট এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, সরকারি সম্পত্তিতে প্রতিযোগিতা করে হানিফ কাজী, আলমগীর কাজী, বাবুল চৌকিদার, আবুল বাশার, মো. আলী হোসেন, শাহাদাৎ হোসেন, মাস্টার হুমায়ূন কবির বর্তমানে পাকা স্থাপনা ও পাকা ভবন নির্মাণ করছেন। এরা সকলেই জানিয়েছেন পৌরসভা থেকে অনুমতি নিয়ে কাজ করছেন তারা। ইতিমধ্যে বহু স্থাপনার নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়ে গেছে।

মঠবাড়িয়া পৌর নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুস ছালেক বলেন, পৌরসভা থেকে কাউকে কোনো পাকা স্থাপনা নির্মাণের  অনুমতি দেয়া হয়নি। তারা অবৈধভাবেই পাকা স্থাপনা নির্মাণ করছেন।

সাবেক কাউন্সিলর হেমায়েত উদ্দিন বলেন, প্রশাসনের উদাসীনতায় অনেক আগেই সরকারি এ সম্পত্তি অবৈধ দখলদারদের হাতে চলে গেছে। বর্তমানে বহুসংখ্যক প্রভাবশালী প্রতিযোগিতা করে পাকা স্থাপনা ও পাকা ভবন নির্মাণ করছেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ্বাস বলেন, পৌর শহরের খাল বা তার পাশের সম্পত্তি জেলা পরিষদের। এখানে আমার কিছু করার নাই। তার পরেও অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে জেলা পরিষদকে অবহিত করেছি।

নাম প্রকাশ না করার ন শর্তে পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্থানীয় এক কর্মকর্তা এসব জমি পানি উন্নয়ন বোর্ডের দাবি করে বলেন, আমার ঊর্ধ্বতন কিছু কর্মকর্তার উদাসীনতায় এ সম্পত্তি অবৈধ দখলদারদের হতে চলে গেছে। তারা এগুলো ছোট কার মনে করে নজর দিচ্ছে না। বড় কাজ নিয়ে তারা ব্যস্ত থাকেন।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বিভাগীয় নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক চন্দ্র দাসের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি। তবে উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. শাহ আলম বালী জানান, ওই সম্পত্তি জেলা পরিষদের।

পিরোজপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী রেবেকা খানম জানান, আমি  ঘটনাস্থলে সার্ভেয়ার পাঠাচ্ছি। ওই সম্পত্তি জেলা পরিষদের হলে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবে।

জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, ওই সম্পত্তি পানি উন্নয়ন বোর্ডের। সরকারি সম্পত্তি বেদখল হওয়া দুঃখজনক। অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করতে স্ব-স্ব দপ্তরের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

 

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে মালেক সিকদার (৪৮) নামে …

বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টারঃ  বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করার অভিযোগে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার রবিউল ইসলাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!