মঠবাড়িয়াবুধবার , ৪ অক্টোবর ২০১৭
  1. আন্তর্জাতিক
  2. ইতিহাস-ঐতিহ্য
  3. খেলাধুলা
  4. জাতীয়
  5. প্রতিবেদন
  6. ফটো গ্যালারি
  7. বিচিত্র খবর
  8. বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি
  9. বিনোদন
  10. ভিডিও গ্যালারি
  11. মঠবাড়িয়ার খবর
  12. মতামত
  13. মুক্তিযুদ্ধ
  14. রাজনৈতিক খবর
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মঠবাড়িয়ায় অবরোধে বলেশ্বরে মা ইলিশ ধরে প্রকাশ্যে বিক্রির অভিযোগ

Mathbariaprotidin
অক্টোবর ৪, ২০১৭ ১১:১৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার : প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় অবরোধ চলাকালে সরকারের আইনের প্রতি বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বলেশ্বরে কতিপয় অসাধু জেলেরা মা ইলিশ ধরে প্রকাশ্যে বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার বলেশ্বর নদ তীরবর্তী কচুবাড়িয়া গ্রামের মৎস্য প্রতিনিধি সন্তোষ কুমার, স্থানীয় জেলে দুলাল সর্দার ও ইউসুফ হাওলাদার যৌথভাবে বুধবার বিকেলে মঠবাড়িয়ার ইউএনও বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সাপলেজা ইউনিয়নের কচুবাড়ীয়া গ্রামের নুরুল হক গাজীর পুত্র মিজান গাজী (৪৩), ছত্তার গাজীর পুত্র শাজাহান গাজী (৩৫) ও তার বড় ভাই শাহাদাৎ গাজী (৪৫) ১লা অক্টোবরে অবরোধ শুরুর থেকেই ওই তিন জেলে সরকারের আইনকে  তোয়াক্কা না করে গত কয়েকদিন ধরে বলেশ্বর নদের জলাঘাট, খেতাছিড়া, মাঝেরচরে জাল পেতে ৩ থেকে ৪শ পিস মা ইলিশ ধরে আসছে। ওই ডিমওয়ালা মাছ স্থানীয় বিভিন্ন বাজারে প্রকাশ্যে বিক্রি করছে বলে অভিযোগ করেন।

সাপলেজা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো: আফজাল বেপারী জানান, মিজান গাজীর বিরুদ্ধে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের ইন্দনে অবরোধ চলাকালে নদীতে জাল পেতে প্রকাশ্যে মাছ ধরার অভিযোগ রয়েছে। তিনি বলেন, অসাধু জেলে মিজান গাজীর জালে ধরা মাছ মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় হাজীগঞ্জ বাজারে আড়ৎদার ইদ্রিস চৌকিদার প্রকাশ্যে তার সামনে বসে কয়েকজন স্থানীয় লোকের কাছে বিক্রি করে। তিনি আরও জানান, এ বিষয়টি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।

এ ব্যাপারে মঙ্গলবার বিকেলে মুঠোফোনে মিজান গাজীর সাথে যোগাযোগ করলে তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে উল্টো বলেন, যারা নদীতে মা ইলিশ শিকার করছেন তাদেরকে ধরে আমি প্রশাসনের কাছে দিচ্ছি।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এসএম আজাহারুল ইসলাম জানান, অবরোধে কতিপয় জেলের বিরুদ্ধে জাল পাতার লিখিত অভিযোগ পেয়েই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম ফরিদ উদ্দিন লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত করে ওই জেলেদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

 

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
error: Content is protected !!