রবিবার , সেপ্টেম্বর ২০ ২০২০
Breaking News

মঠবাড়িয়ায় অপহরণের একমাসেও খোঁজ মিলছেনা প্রবাসীর স্ত্রী নাজমার

স্টাফ রিপোর্টার : অপহরণের একমাসেও খোঁজ মেলেনি মঠবাড়িয়ার গৃহবধু ফারজানা আক্তার নাজমার (২২)। এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলেও থানা পুলিশ অপহৃতাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়নি। অপহৃতা নাজমা উপজেলার বাদুরা গ্রামের জালাল পঞ্চায়েত এর মেয়ে ও পার্শ্ববর্তী মিরুখালী গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী সহিদুল ইসলামের স্ত্রী।
থানা সূত্রে জানা যায়, বাদুরা গ্রামের শাহ আলম ফরাজীর পুত্র ভাড়ায় চালিত মটরসাইকেল ড্রাইভার আল মাসুদ (২০) দীর্ঘদিন ধরে নাজমাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করে আসছিল। প্রতিবেশীর কু-প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় গত ২৪  আগষ্ট ’১৭ সকালে নাজমা স্থানীয় বাদুরা বাজারে যাওয়ার পথে শিশু নিকেতন কিন্ডার গার্ডেনের সামনের ব্রীজের উপর ওঠার সময়ে পূর্বে ওঁৎ পেতে থাকা আল মাসুদ ও তার দলবল নাজমাকে রুমালে চেতনা নাশক ঔষধ ব্যবহার করে নাকে চেপে ধরে অজ্ঞান করে মটর সাইকেলে তুলে নিয়ে পালিয়ে যায়।
এব্যপারে অপহৃতার পিতা মো: জালাল পঞ্চায়েত বাদী হয়ে আল মাসুদসহ ৪জন এজাহার নামীয় ও আরও ২জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার আর্জিতে বাদী আরও উল্লেখ করেন যে, ১ নং আসামী আল মাসুদ অজ্ঞাতনামা আসামীদের সহযোগিতায় তার মেয়েকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে গণধর্ষণ, মুক্তিপণ দাবী, পতিতালয়ে বিক্রি অথবা খুন করিয়া লাশ গুম করতে পারে।
পুলিশ এ মামলার আসামী মাসুদের পিতা শাহ আলম ফরাজী ও তার মা ফিরোজা বেগমকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করলেও ঘটনার নায়ক মাসুদসহ অন্য সহযোগী আসামীরা পলাতক রয়েছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এসআই বিকাশ চন্দ্র দে জানান, ঘটনার মূল হোতা মাসুদসহ অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে এবং অপহৃতা নাজমাকে উদ্ধারের পুলিশ তৎপর রয়েছে।

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় নকল কীটনাশক উদ্ধার : গ্রেফতার-১

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় উপজেলার বড়মাছুয়া বাজারে তিন কার্টুন ১শ ২০ প্যাকেট নকল ভিরতাকো …

পুত্রবধূকে মারধরের ভিডিও ভাইরাল : থানায় মামলা, শ্বাশুড়ী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শ^শুর ও শ্বাশুড়ী কতৃক প্রবাসী পুত্রের স্ত্রী তানজিলা বেগম (২৬) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!