মঠবাড়িয়ামঙ্গলবার , ২২ আগস্ট ২০১৭
  1. আন্তর্জাতিক
  2. ইতিহাস-ঐতিহ্য
  3. খেলাধুলা
  4. জাতীয়
  5. প্রতিবেদন
  6. ফটো গ্যালারি
  7. বিচিত্র খবর
  8. বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি
  9. বিনোদন
  10. ভিডিও গ্যালারি
  11. মঠবাড়িয়ার খবর
  12. মতামত
  13. মুক্তিযুদ্ধ
  14. রাজনৈতিক খবর
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভিক্ষা নয় সহযোগিতা চান মঠবাড়িয়ার আল-আমিন

Mathbariaprotidin
আগস্ট ২২, ২০১৭ ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মোঃ রোকনুজ্জামান শরীফ : ‘ভিক্ষা চাই না, সহযোগিতা চাই। আমি কাজ করে খেতে চাই।’ দৃঢ়তার সঙ্গে কথাগুলো বললেন দুই সন্তানের জনক শারীরিক প্রতিবন্ধী আল-আমিন খান। তার মতে, শারীরিক প্রতিবন্ধিতা কোনো সমস্যা নয়, চলাফেরা করতে পারলেই তিনি ভালো উপার্জন করে পরিবারের ভরণপোষণ করতে সক্ষম হবেন। আল-আমিনের চলাফেরার জন্য প্রয়োজন একটি হুইল চেয়ার। কোনো সহূদয় ব্যক্তি তার দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে ব্যবসা করে ভালোভাবে সংসার চালাতে পারতেন তিনি।

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সামনে গুচ্ছগ্রামে থাকেন আল-আমিন। ওখানেই সামান্য পান-সিগারেটের ব্যবসা করেন। শিশুকালে আল-আমিনের পিতা মোস্তফা খানের মৃত্যু হওয়ার কিছুদিন পর তার মায়েরও মৃত্যু হয়। অতঃপর ১৪ বছর বয়সে টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হলে তার দুটি পা বিকলাঙ্গ হয়ে যায়। পিতামাতার সাত সন্তানের মধ্যে আল-আমিন সবার ছোট।

অভাবের সংসারে বহু কষ্টে বড় হয়ে লিলি বেগমকে বিয়ে করে সংসার শুরু করেন আল-আমিন। তাদের ঘরে একটি ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে। পান-সিগারেটের ব্যবসা করে সংসার পরিচালনা করেন। এই সামান্য আয় দিয়ে অদম্য মনোবল নিয়ে মেয়েকে এইচএসসি পাস করিয়ে বিয়ে দিয়েছেন। আর ছেলে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। আল-আমিনের ইচ্ছা একমাত্র ছেলেকে পড়াশোনা করিয়ে মানুষের মতো মানুষ করবেন। কিন্তু অভাবের সংসারে ছেলের পড়াশোনার খরচ চালাতে পারছেন না বলে তিনি জানান। পান-সিগারেটের ব্যবসায় যা আয় হয় তাতে দুর্মূল্যের বাজারে অর্ধাহারে-অনাহারে কোনো রকম দিনাতিপাত করছেন।

আল-আমিন জানান, শারীরিক বিকলাঙ্গের কারণে চলাফেরা করতে পারেন না। যে কারণে ভালো ব্যবসাও করতে পারেন না। তার চলাফেরার জন্য একটি হুইল চেয়ার খুবই প্রয়োজন। যার মূল্য প্রায় ২০ হাজার টাকা। তার পক্ষে এ টাকার ব্যবস্থা করা অসম্ভব। কোনো সহূদয় ব্যক্তি তার দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে ব্যবসা করে সংসার চালাতে পারতেন।

শারীরিক প্রতিবন্ধী আল-আমিন আশা করেন সমাজের কোনো বিত্তবান ব্যক্তি তার দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেন। কারও সহযোগিতা পেলে একমাত্র ছেলের পড়াশোনাসহ সংসার পরিচালনা করে বেঁচে থাকার দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

 

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
error: Content is protected !!