রবিবার , সেপ্টেম্বর ২০ ২০২০
Breaking News

বিশ্বের অষ্টম আশ্চর্যের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা

ডেস্ক রিপোর্ট : পৃথিবীর সাতটি আশ্চর্যের কথা সকলের জানা আছে। কিন্তু অষ্টম আশ্চর্যের সৌন্দর্য এতকাল গোপনেই রয়ে ছিল। এবার সেই অষ্টম আশ্চর্যের বর্তমান পরিস্থিতির কথাই জানালেন বিজ্ঞানীরা। নিউজিল্যান্ডে অবস্থিত সেই অষ্টম আশ্চর্যের সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

নিউজিল্যান্ডের লেক রোটোমোহনার সিলিকা উপত্যকার সৌন্দর্য দেখতে এককালে ভিড় জমাতেন হাজার হাজার পর্যটক। কিন্তু ১৮৮৬ সালের পর ছবিটা পালটে যায়। তারাওয়েরা আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে সাজানো উপত্যকা ছারখার হয়ে গিয়েছিল। হ্রদের নিচে তলিয়ে যায় এটি। যদিও সেই ধ্বংসলীলা পুরোপুরি নিঃশেষ করে দিতে পারেনি গোলাপি-সাদা সিঁড়ির মতো সুন্দর উপত্যকাটিকে।

দীর্ঘদিনের গবেষণা ও প্রচেষ্টার পর ধ্বংসাবশেষ থেকে অত্যাশ্চর্য সিলিকা টেরিসটি খুঁজে বের করতে সফল হয়েছেন গবেষকরা। সোপানটি জুড়ে রয়েছে হট স্প্রিং। ২০১১ সালে ওয়াইকাটো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা প্রথম এই গোলাপি সোপানের একাংশ আবিষ্কার করেছিলেন। তারপর চলে দীর্ঘ গবেষণা। ২০১৬ সালে তাদের গবেষণার কথা এক জার্নালেও প্রকাশিত হয়েছিল।

সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান-এর খবর অনুযায়ী গবেষক রেক্স বান জানান, ধ্বংসের আগে পর্যটকদের সবচেয়ে প্রিয় দর্শনীয় স্থানের মধ্যে একটি ছিল সিলিকা টেরিস। মনোরম সেই সোপান দেখলে চোখ জুড়িয়ে যেত। সাধারণরাই শুধু নন, এর আকর্ষণে ব্রিটিশ রাজা-রাজড়া থেকে সুদূর আমেরিকার মানীগুণী ব্যক্তিরাও এসে উপস্থিত হতেন। তবে সেই সময় এই উপত্যকা নিয়ে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়নি বলে এর দৈর্ঘ্য-প্রস্থ সঠিক জানা যায়নি।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ১৩০ বছর পর অগ্ন্যুৎপাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়া সেই বিস্তৃত অঞ্চলের সন্ধান পেয়েছেন তারা। তবে কি পৃথিবীর অষ্টম আশ্চর্য নতুন রূপে বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরতে গবেষকরা চেষ্টা করছেন।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন অনলাইন

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় রহস্য জনক ৪ সন্তানের জননী নিখোঁজ !

স্টাফ রিপোটারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দুলিয়া বেগম (৩৫) নামে ৪ সন্তানের জননী মঙ্গলবার নিখোঁজ হয়েছেন । দুলিয়া …

মঠবাড়িয়ায় মোবাইলের জন্য কলেজ ছাত্র গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোটারঃ পৌরশহরের সবুজনগর এলাকায় রোববার বিকেলে মো: আরমান হাওলাদার (১৬) নামের এক কলেজ ছাত্র মায়ের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!