শনিবার , সেপ্টেম্বর ২৬ ২০২০
Breaking News

বিএনপি নেতা হত্যায় ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্যসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : মঠবাড়িয়ায় বিএনপির নেতা হাবিবুর রহমান তালুকদার হত্যার ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পদক হারুন-অর-রশিদ তালুকদার, ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদারসহ ১৭ জনকে আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা হয়েছে। বুধবার সকালে নিহতের ছেলে কলেজ ছাত্র হাফিজুর রহমান বাদী হয়ে অজ্ঞাত আরও ৬কে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন। থানা পুলিশ বুধবার দুপুরে মামলার আসামী মাসুম তালুকদারকে (৪৫) গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করে।
মামলা সূত্রে জানাযায়, গত ৩ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেল নিহত হাবিব তালুকদারের ছেলে স্কুল ছাত্র রাকিবের সাথে ফুটবল খেলা নিয়ে প্রতিপক্ষ ফারুক তালুকদারের ছেলে সাইফুলের বিরোধ সৃষ্টি হয়। ওই বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার ও তার পুত্র রাজীব, রুম্মন সহযোগী সাইফুল তুষখালী বাজারে গত রোববার সকালে হাবিব তালুকদারকে প্রকাশ্যে দুই দফা মারধর করে। এঘটনায় প্রতিপক্ষ হাবিব তালুকদার স্থানীয় ধানীসাফা ইউপি চেয়ারম্যান হারুনÑঅরÑরশিদের কাছে অভিযোগ করলে বিচার না করে গত ইউপি নির্বাচনে তার পক্ষে না করার জের মেটাতে ইউপি সদস্য ইদ্রিস তালুকদার, পুত্র ও তাদের সহযোগীরা হাবিব তালুকদারকে পুণরায় মারধর করে। এ সময়ে নিহত হাবিবের ছেলে কলেজ ছাত্র হাফিজুর ও স্কুল ছাত্র রাকিব পিতাকে বাঁচাতে এলে তাদেরকে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করলে দুই ভাই পার্শবর্তী এক বাড়িতে আশ্রয় নেয়। ওই ঘটনার পর থেকে পিতা হাবিব তালুকদার নিখোঁজ হয়।
ঘটনার পরদিন সোমবার গভীর রাতে তুষখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সেফটি ট্যাংকের পাশ থেকে থানা পুলিশ হাবিব তালুকদারের লাশ উদ্ধার করে।
এদিকে বুধবার সকালে তুষখালি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে নিহত বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমানের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় মঠবাড়িয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা আশরাফুর রহমান, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন দুলালসহ স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মী ও সহা¯্রাধীক এলাকাবাসী অংশ নেয়।
নিহতের ছেলে হাফিজুর জানান, গত ইউপি নির্বাচনে তার পক্ষে কাজ না করায় ইউপি চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ তালুকদারের নির্দেশে ইদ্রিস, ভাই হিমু তালুকদার ও তাদের পুত্ররা আমার পিতাকে হত্যা করে।
মামলার প্রধান আসামী ইউপি চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ তালুকদার তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, রাজনৈতিক ভাবে হেয় করার জন্য আমাকে আসামী করা হয়েছে।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম তারিকুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃত মাসুম তালুকদারকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে মালেক সিকদার (৪৮) নামে …

বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টারঃ  বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করার অভিযোগে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার রবিউল ইসলাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!