মঠবাড়িয়াশুক্রবার , ১৭ নভেম্বর ২০১৭
  1. আন্তর্জাতিক
  2. ইতিহাস-ঐতিহ্য
  3. খেলাধুলা
  4. জাতীয়
  5. প্রতিবেদন
  6. ফটো গ্যালারি
  7. বিচিত্র খবর
  8. বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি
  9. বিনোদন
  10. ভিডিও গ্যালারি
  11. মঠবাড়িয়ার খবর
  12. মতামত
  13. মুক্তিযুদ্ধ
  14. রাজনৈতিক খবর
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাহারাইন থেকে অর্ধকোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে আসা হাফিজ মঠবাড়িয়ায় গ্রেফতার

Mathbariaprotidin
নভেম্বর ১৭, ২০১৭ ৭:২৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টার : বাহারাইন থেকে ৩৯ লাখ টাকা চুরি করে পালিয়ে আসা প্রতারক হাফিজ মোল্লা (৩৫)কে অবশেষে গ্রেফতার করেছে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে স্থানীয় ছোট মাছুয়া শ্বশুরবাড়ি থেকে হাফিজকে পুলিশ গ্রেফতার করে। হাফিজ উপজেলার পশ্চিম রাজপারা গ্রামের আবুল হাসেম মোল্লার ছেলে।
মামলা সূত্রে জানাযায়, গত ৯ বছর পূর্বে হাফিজ বাহারাইন মানামা সিটিতে ওয়াদি মারমারা বুটিক নামক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেয়। চাকরীর এক পর্যায় প্রতিষ্ঠানের বাংলাদেশী মালিক আব্দুল মজিদ ১৩/০৫/২০১৫ইং তারিখ হাফিজকে প্রতিষ্ঠানে রেখে ছুটিতে দেশে আসে। ২১ মাস পর আব্দুল মজিদ গত ৩/৩/২০১৭ ইং তারিখ পুণরায় বাহারাইন প্রতিষ্ঠানে ফিরে যান। পরে হাফিজের কাছে প্রতিষ্ঠানের হিসাব চাইলে গত ২৮/০৩/২০১৭ ইং তারিখ হিসাব না দিয়ে হাফিজ পালিয়ে বাংলাদেশে চলে আসে। এঘটনায় ওই প্রতিষ্ঠানের মালিকের বড় ভাই আব্দুল জব্বার হাওলাদার বাদী হয়ে হাফিজকে একমাত্র আসামী করে মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি পিরোজপুর জেলা গোয়েন্দা সংস্থাকে (ডিবি) তদন্তের আদেশ দেন। জেলা গোয়েন্দা সংস্থার অফিসার ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর হোসেন তদন্তে উল্লেখিত টাকা চুরির প্রমান পাওয়ায় ২১/১০/২০১৭ ইং তারিখ আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।
এছাড়া ওই প্রতারক হাফিজ মোল্লা বাহারাইন থাকাকালীন তার ভাইয়ের ছেলে আব্দুর রহমানের মাধ্যমে উপজেলার পশ্চিম রাজপারা গ্রামের আ. মজিদ ফকিরের ছেলে ইব্রাহীমের কাছ  থেকে ৪ লাখ ৫০ হাজার, উত্তর মিঠাখালী গ্রামের আনোয়ার হোসেনের পুত্র লুৎফর রহমানের কাছ থেকে ৩ লাখ ৬০ হাজার এবং দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামের মৃত. শৈলেন সিকদারের ছেলে সুমন সিকদারের কাছ থেকে ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে জাল ভিসায় বাহারাইন পাঠায়। পরে ওই তিনজনই প্রতারিত হয়ে বাহারাইন থেকে দেশে ফেরত আসে। এঘটনায় প্রতারিত তিনজনই হাফিজকে আসামী করে পৃথক আরও তিনটি মামলা করেন।
এছাড়াও প্রতারক হাফিজ মোল্লার বিরুদ্ধে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের যুবকদের বিদেশ নেবার কথা বলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম তারিকুল ইসলাম জানান, আদলতের ওয়ারেন্ট পেয়ে  হাফিজকে গ্রেফতার করে শুক্রবার সকালে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
error: Content is protected !!