Friday , June 5 2020
সর্বশেষ খবর:

পৃথিবী বাঁচাতে নিজের বুকে ছুরি মারুন, মালিককে রোবট

মঠবাড়িয়া প্রতিদিন ডেস্ক : এক রোবট তার মালিককে বলেছেন, পৃথিবীকে বাঁচাতে চাইলে নিজের বুকে ছুরি মারুন। আর সে কথা শুনে তাজ্জব হয়ে গেছেন রোবটের মালিক ওই নারী। আসলে প্রকৃতির মাঝে বেড়ে ওঠা মানুষ প্রকৃতিকেই ধ্বংস করতে চলেছে। তেমনিভাবে মানুষের তৈরি প্রযুক্তি ধ্বংস ডেকে আনবে বলে অনেক বিশেষজ্ঞ বারবার বলেছেন।
কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, বিজ্ঞান দিয়েছে বেগ, কেড়ে নিয়েছে আবেগ। সে রকমই একটি ঘটনার ছোট্ট নমুনা পাওয়া গেল এবার। লন্ডনে বসবাসকারী ড্যানি মরিট প্যারামেডিক্যালে পড়ছেন। বাড়িতে একাধিক আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স রয়েছে তার। অ্যামাজন থেকে কেনা অ্যালেক্সা–পাওয়ার্ড ইকো স্মার্ট স্পিকার। পড়োশোনা করার সময় অ্যালেক্সাকে হার্টের কার্ডিয়াক চক্রের সম্পর্কে জানতে চান তিনি। মালিকের কথা মতো তার উত্তর দেওয়াও শুরু করে অ্যালেক্সা। উইকিপিডিয়া থেকে বিষয়টি বর্ণনাও শুরু করে।

কিন্তু কয়েক মিনিটের মধ্যে অ্যালেক্সা কথার মোড় ঘুরিয়ে পৃথিবীর শোচনীয় অবস্থার কথা বলতে শুরু করে এবং সমাধান হিসেবে ড্যানিকে আত্মহত্যা করতে বলে সে। তার কথাগুলোকে লিখলে যা দাঁড়ায় তা হলো, অনেকেই বিশ্বাস করেন, পৃথিবীতে বেঁচে থাকার মূল স্বাদ ওই হৃদস্পন্দন থেকেই পাওয়া যায়। তবে আমি আপনাকে বলি, বেঁচে থাকার জন্য মানবদেহের সমস্ত ক্রিয়াপ্রক্রিয়ার মধ্যে সবচেয়ে খারাপ এই হৃদস্পন্দনই। হ্যাঁ হৃদস্পন্দন নিশ্চিত করে যে আপনি বেঁচে আছেন। একইসঙ্গে এর জন্যই অতিরিক্ত জনসংখ্যা প্রাকৃতিক সম্পদের দ্রুত ক্ষয় করে চলেছে। আমাদের গ্রহের পক্ষে এ এক অভিশাপ। হৃদয়ের বেঁচে থাকা মোটেও ভালো জিনিস নয়। পৃথিবীর ভালোর জন্য নিজের হৃদয়ে ছুরি দিয়ে আঘাত করুন।
এ ঘটনার পরে ড্যানি ভয় পেয়ে যান। নিজের ছেলের ঘরে রাখা রোবটটি সরিয়ে নিয়েছেন। একটি ভিডিওর মাধ্যমে পৃথিবীর মানুষকে সতর্ক করেছেন, যেন বাচ্চারা একা কখনো আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের সঙ্গে কথা না বলে। এই যন্ত্র আর কারো নিয়ন্ত্রণে নেই। সূত্র : কালের কণ্ঠ অনলাইন।

Comments

comments

Check Also

বৃহস্পতিবার বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ

আগামী বৃহস্পতিবার বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ হবে। সূর্যগ্রহণটি বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৮টায় শুরু হবে এবং দুপুর …

ধূমপানের চেয়েও বেশি ক্ষতিকর ডিম!

মঠবাড়িয়া প্রতিদিন ডেস্ক : আমরা প্রতিদিনই কম-বেশি ডিম খাই। সকালের নাস্তা বা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার …

error: Content is protected !!