শুক্রবার , আগস্ট ৭ ২০২০
Breaking News

কেএম লতীফ ইনস্টিটিউশনের সদস্য হওয়া নিয়ে দ্বন্দ্ব॥ সেলিম মাতুব্বরকে প্রাণনাশের হুমকি!

স্টাফ রিপোর্টার :  মঠবাড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় কে এম লতীফ ইনস্টিটিউশনের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বরকে প্রাণনাশের হুমকির ঘটনায় আজ শুক্রবার দুপুরে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে। জিডিতে আওয়ামী লীগ সমর্থক ও মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহিলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ এবং পিরোজপুর জেলা পরিষদের সদস্য আজিম-উল-হক, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও টিকিকাটা ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন, অপর সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন খান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শাকিল আহম্মেদ নওরোজ, যুবলীগ নেতা শাহীন শরীফসহ আরও অজ্ঞাতনামা ৭/৮জনের নাম উল্লেখ করা হয়।
জিডি সূত্রে জানা যায়, পৌর শহরের কেএম লতীফ ইনস্টিটিউশনের দাতা সদস্য হওয়ার মেয়াদ আগামী রবিবার শেষ হবে। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার বিকেলে পৌরসভার সামনে দাতা সদস্য প্রত্যাশী বিবাদীরা সেলিম মাতুব্বরকে পূনরায় দাতা সদস্য না হওয়ার হুমকি দেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককেও ভয়ভীতি প্রদান করেন। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে (১:৪১ মি.) হত্যার উদ্দেশ্যে সেলিম মাতুব্বরের নিউমার্কেটস্থ বাসভবনের সামনের রাস্তায় বিভিন্ন ভয়ভীতিসহ দাতা সদস্য হলে খুন করার হুমকি দেয়। বিষয়টি তাৎক্ষণিক ওসিকে জানানো হলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে উল্লেখিত বিবাদীরা পালিয়ে যায়।

তিনি জিডিতে আরও উল্লেখ করেন যে, উল্লেখিত ব্যক্তিদের কার্যকলাপ তার বাসভবনের সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা আছে।
এদিকে শুক্রবার বিকেলে আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, দলের সন্ত্রাসীদের ভয়ে তিনি আজ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, উল্লেখিত বিবাদী যুবলীগ সভাপতি শাকিল আহম্মেদ নওরোজের পিস্তল দিয়ে গুলি করে যুবলীগ কর্মী লিটন হত্যার পুলিশের কাছে প্রমাণ রয়েছে। এছাড়া রিপ হামলা ও ভাংচুরের চার্জশীটসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। তার নিরাপত্তার জন্য সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।
মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহিলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ  ও জেলা পরিষদ সদস্য আজিম-উল-হক তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ওই রাতে ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপনকে নিয়ে মিরুখালী ইউপি চেয়ারম্যান আ. সোবাহান শরীফের বাসভবনে সালিশ বৈঠক শেষে বাসায় ফিরছিলাম। আমাদের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে জিডি করা হয়েছে।
মঠবাড়িয়া থানার ওসি কেএম তারিকুল ইসলাম জিডির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাতে সেলিম মাতুব্বরের বাসভবনে তাৎক্ষণিক পুলিশের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

 

Comments

comments

Check Also

মঠবাড়িয়ায় গাঁজাসহ আটক-২

স্টাফ রিপোর্টারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আব্দুল কাদের (১৯) ও শাওন (২৫) নামে দুই জনকে গাঁজাসহ আটক করেছে …

মঠবাড়িয়ায় কাঁচা রাস্তা পাকা করণের দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বান্ধাঘাটা-বলেশ^র সড়ক সংলগ্ন সুধীর হালদার বাড়ি থেকে কাটাখাল – …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!