,

শিরোনাম :

মঠবাড়িয়ায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলার স্বাক্ষির কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে মামলা

স্টাফ রিপোটারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলার স্বাক্ষীকে আসামি করার ভয় দেখিয়ে কথিত দালাল মোসলেমের বিরুদ্ধে ২লক্ষ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে ওই মামলার স্বাক্ষী ফাতিমা বেগম মোসলেমসহ দুজনকে আসামী করে মামলা করেছে আদালতে। মামলাটি আমলে নিয়ে গত মঙ্গলবার মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারিক হাকিম মো.আল-ফয়সাল পুলিশ ইনভেস্টিকেশন অফ ব্যুরো (পি, বি, আই) পিরোজপুর কে সরোজমিন তদন্তপূর্বক রিপোর্ট আগামী ৭অক্টোবর আদালতে প্রেরণ করার আদেশ দেন।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, গত ১৮জুলাই উপজেলার বড়হারজী গ্রামে মৃত: জব্বার জোমাদ্দারের স্ত্রী মালেকা বেগম মঠবাড়িয়া থানায় শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে একই গ্রামের রুস্তুম কাজীর ছেলে জাহিদ (১৬) কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। ওই মামলার স্বাক্ষী জামাল কাজীর স্ত্রী ফাতিমা বেগকে আসামী করার ভয় দেখিয়ে একই গ্রামের মৃত: হামেজ এর ছেলে কথিত দালাল মোসলেম ২লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি বলেন টাকা দিলে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হবে।

ফাতিমা বেগম জানান, চাঁদার টাকার জন্য মোসলেম বিভিন্ন সময় ভয়-ভীতি ও হুমকি দেয়ার ঘটনা পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপারকে লিখিত ভাবে জানালে তিনি মঠবাড়িয়া থানার ওসিকে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিলেও ওসি সৈয়দ আব্দুল্লাহ কোন ব্যাবস্থা না নেওয়ায় আমি গত মঙ্গলবার ২০ আগস্ট মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করি।

মঠবাড়িয়া থানা ওসি সৈয়দ আব্দুল্লাহ জানান, ফাতিমা বেগমের কাছে চাদাঁ দবির বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

0Shares

Comments

comments