,

শিরোনাম :
«» মঠবাড়িয়ায় রাস্তার পাশে লাইসেন্স ছাড়া পেট্রল ও এলপি গ্যাস বিক্রি, ব্যবসায়ীর জরিমানা «» মঠবাড়িয়ায় অবরোধকালীন সময় সংশোধনের দাবিতে জেলেদের মানববন্ধন «» মঠবাড়িয়ায় জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ শুরু «» মঠবাড়িয়ায় নুসরাত হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন «» মঠবাড়িয়ায় ক্যান্সার আক্রান্ত জান্নাতিকে অর্থ সহায়তা প্রদান «» মঠবাড়িয়ায় বৈশাখী মেলায় নিখোঁজ হওয়া স্কুল ছাত্র নয়নের ৮ দিনেও সন্ধান মেলেনি «» মঠবাড়িয়ায় ইভটেজিং এর দায়ে দপ্তরীর অর্থদন্ড «» নুসরাত হত্যার সর্বোচ্চ বিচার চেয়ে মঠবাড়িয়ায় মানববন্ধন «» আ: ছত্তার আকনের ইন্তেকাল «» মঠবাড়িয়ায় মৎস্য অফিসের ক্ষেত্র সহকারীর অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

মঠবাড়িয়ায় শিক্ষকের নির্মম নির্যাতনে স্কুলছাত্র হাসপাতালে : তদন্ত কমিটি গঠন

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় কোচিং সেন্টারে সহপাঠি ছাত্রীর সাথে কথা বলার অপরাধে কে,এম, লতীফ ইনস্টিটিউশনের অস্টম শ্রেণীর এক ছাত্রকে নির্মমভাবে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করেছে ওই স্কুলেরই এক শিক্ষক। রোববার দুপুরে শহরের তরকারী বাজার সংলগ্ন ওই শিক্ষকের কচিং সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত স্কুল ছাত্র তানজিল (১৪) কে সহপাঠিরা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহত তানজিল মঠবাড়িয়া গ্রামের মৃত লাবু তালুকদারের ছেলে।

আহত ছাত্র জানান, ওই স্কুলের ক্রীড়া শিক্ষক গিয়াস উদ্দিনের কোচিং সেন্টারের একজন সে নিয়মিত ছাত্র। রোববার সকালে ওই সেন্টারে কোচিং এর ক্লাস শেষে ভুলে ফেলে রেখা বই দুপুরে টিফিনের সময় ওই আনতে যাই। এ সময় শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমাকে বেত দিয়ে এলাপাথারী পিটিয়ে ও লাথি মেরে মারাত্মক আহত করে।
তানজিলের ফুফু তাসলিমা বেগম জানান, এর আগেও নানা অজুহাতে তানজিলকে ওই শিক্ষক পিটিয়েছে।
অভিযুক্ত শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন জানান, কোচিং সেন্টারের ভিতরে সহপাঠি এক ছাত্রীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পাওয়ায় নির্যাতন করেন বলে স্বীকার করেন। তবে নির্যাতনের পরিমান বেশী হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।
স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নির্যাতনের খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে ওই ছাত্রে খোঁজখবর নিয়েছি এবং এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশদেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুল ইসলাম বিএসসিকে আহবায়ক করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 

Comments

comments