,

শিরোনাম :

মঠবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড় ফণী’র প্রভাবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শুক্রবার রাতে ফণীর প্রভাবে ঝড়, জোয়ার ও বৃষ্টিতে উপজেলার ব্যপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার বলেশ্বর নদের তীরের মানুষ বেড়ি বাধ ভেঙ্গে যাওয়ায় জলোচ্ছাসের ভয়ে বেড়ীবাঁধ সংলগ্ন পরিবারগুলির মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানাগেছে উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নে ৭শ ৯১টি পরিবার ও ৪হাজার ৭শ ৩২জন লোক ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এ ছাড়া ঝড়ে ২শত ৩০ একর জমির ফসল সম্পূর্ণ ও ৫ শত ৭২ একর জমির ফসল আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। ঝড়ে ২ত ৪৫টি কাচা ঘর ও ৪ শত ৩৭ টি আংশিক কাচা ঘরসহ ২.৬ কিলো মিটার বেড়ি বাধ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
শনিবার দুপরে সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের বলেশ্বর নদী তীরের মানুষের মাছে আতঙ্কত বিরাজ করছে। শুক্রবার রাতে ঘুর্নিঝাড় ফনির প্রভাব ও ভারি বর্ষণে নদী তীরবর্তী ক্ষেতাছিঁড়া, কচুবাড়িয়া জেলে পল্লীর অন্তত ৪০টি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ সময় বেশ কিছু গাছপালা উপড়ে গেছে। বলেশ্বর নদীতে অস্বাভাবিক জোয়ারে ক্ষেতাছিঁড়া ও কচুবাড়িয়া এলাকার বেড়ি বাধ ভেঙ্গে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।
এসব এলাকার মূগডালসহ বিভিন্ন ফসল দুই ফুট পানিতে ডুবে রয়েছে। ক্ষেতাছিঁড়া ও কচুবাড়িয়া পয়েন্টে বেড়িবাঁধ নদীর প্লাবনের হুমকির মুখে রয়েছে এবং মানষের মাঝে ব্যপক আতঙ্ক বিরাজ করছে।

 

Comments

comments