,

শিরোনাম :

মঠবাড়িয়ায় মাকে কুপিয়ে হত্যা : ঘাতক মেয়ে আটক

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রী ফিরোজা নাছরিন (৫৬) কে বটি দিয়ে কুপিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে মেয়ে তামান্না জেবীন রুমানা (২৮)। বুধবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে পৌরশহরে উত্তর কলেজ পাড়া এলাকায় নিজ বাসায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার ও ঘাতক মেয়ে তামান্না জেবীন রুমানা কে আটক করে। নিহত ফিরোজা নাছরিন সাবেক অগ্রণী ব্যাংক শাখা ব্যাবস্থাপক মূত হেমায়েত উদ্দিনের স্ত্রী।
পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, সাবেক অগ্রণী ব্যাংক শাখা ব্যাবস্থাপক মূত হেমায়েত উদ্দিনের স্ত্রী ফিরোজা নাছরিন তার দুই সন্তান ছেলে রিয়াজ ও মেয়ে তামান্না জেবীন রুমানাকে নিয়ে পৌর শহরের (৬নং ওয়ার্ড) উত্তর কলেজ পাড়ায় নিজ বাসায় বসবাস করত। গত কয়েকদিন যাবত ওই মেয়ে মানুষিক ভারসম্যহীন আচরন করছিল। আজ বুধবার সাকালে মা ও বোনকে বাসায় রেখে ছেলে রিয়াজ বেনের জন্য ডাক্তার আনতে যায়। এ সময় বোন তামান্না জেবীন রুমানা ঘরের মধ্যে মা ফিরোজা নাছরিনকে রান্না ঘরে বটি দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করে। পরে ছেলে রিয়াজ বাসায় এসে দরজায় নক করলে দরজা না খুললে স্থানীয়দের নিয়ে বাসার দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে রান্না ঘরে ক্ষতবিক্ষত রক্তাক্ত মায়ের লাশ দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দেয়।
মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান জানান, মানষিক ভারসম্যহীন মেয়ে তার মাকে এলোপাথারী কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। তবে এ খুনের পিছনে অন্য কোন কারন আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি আরও জানান, এ হত্যার খবর পেয়ে ঘটনা স্থল থেকে নিহতর লাশ উদ্ধার ও ঘাতক মেয়েকে আটক করা হয়েছে।

 

0Shares

Comments

comments