,

শিরোনাম :
«» পিরোজপুর জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জি.এম সরফরাজ «» মঠবাড়িয়ায় নারী ভোটারদের উদ্ভুদ্ধ করতে যুব মহিলা লীগের কর্মী সভা «» প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে মঠবাড়িয়ায় শিক্ষার্থীদের শোভাযাত্রা ও মানববন্ধন «» মঠবাড়িয়ার বড় মাছুয়ায় যুব মহিলা লীগের কর্মী সভা «» মুক্তিযোদ্ধা দেলায়ার হোসেন বাদলের (গোলকি বাদল) ইন্তেকাল «» আশরাফুর রহমান জেলায় শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত «» মঠবাড়িয়ায় শারদীয় দূর্গাপুজা উপলক্ষে শাড়ি বিতরণ «» মঠবাড়িয়ায় কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ ॥ বিষ পানে আত্মহত্যা ॥ ৭ বছর পর ধর্ষক গ্রেফতার «» মঠবাড়িয়ায় মা ইলিশ শিকারের দায়ে এক জেলের কারাদন্ড «» মঠবাড়িয়ায় জেলা প্রশাসক স্বপ্নজয়ীদের বাইসাইকেল প্রদান করলেন

নতুন করে মাপা হবে এভারেস্ট

ডেস্ক রিপোর্ট : ২০১৫ সালের ভূমিকম্পে এভারেস্টের উচ্চতায় পরিবর্তন ঘটেছে বলে মনে করছে নেপাল। সেজন্যে আাগামী দুই বছর ধরে তারা এভারেস্টের উচ্চতা মাপার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নেপালের জরিপ দফতর বলেছে, এভারেস্টের উচ্চতা আগের জরিপগুলো অনুযায়ী ৮ হাজার ৮৪৮ মিটার (২৯ হাজার ২৯ ফুট) বলে মনে করা হয়। কিন্তু এভারেস্টের ভৌগোলিক অবস্থানে পরিবর্তন ঘটেছে বলে মনে করে তারা।

কাঠমান্ডু পোস্ট পত্রিকা নেপালের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, আগামী দুই বছর ধরে তারা এভারেস্টের উচ্চতা মাপবে। সেই সঙ্গে সেখানে জলবায়ুর পরিবর্তনের কী প্রভাব পড়েছে সেটাও দেখা হবে। পুরো জরিপে খরচ হবে প্রায় তের লাখ ডলার। এভারেস্টের উচ্চতা মাপা হবে এই পর্বতশৃঙ্গের তিন দিক থেকে। শেরপারা এই জরিপের জন্য জরিপের যন্ত্রপাতি বহন করে পর্বত চূড়ায় নিয়ে যাবে।

এভারেস্টের উচ্চতা মাপার জন্য নেপালের এই উদ্যোগই একমাত্র উদ্যোগ নয়। গত সপ্তাহে ভারতের জরিপ অধিদফতরও একই কাজ করার ঘোষণা দেয়। অনেক ভূতত্ত্ববিদ মনে করেন ২০১৫ সালের ভূমিকম্পে এভারেস্টশৃঙ্গ কিছুটা বসে গেছে। এভারেস্টশৃঙ্গের হিলারি স্টেপ বলে পরিচিত একটি প্রস্তরখণ্ড ধসে পড়েছে বলেও মনে করেন অনেকে। যদিও এ নিয়ে বিতর্ক আছে। এভারেস্টশৃঙ্গে আরোহণের ক্ষেত্রে হিলারি স্টেপকে সর্বশেষ বাধা হিসেবে গণ্য করা হয়।

Comments

comments