,

শিরোনাম :
«» মঠবাড়িয়া পৌর যুব সমাজের উদ্যোগে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ «» মঠবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধাকে পেটাল আইনশৃঙ্খলা কমিটির সদস্য «» মঠবাড়িয়া নিউমার্কেট নিবাসী বজলুর রহমান খানের ইন্তেকাল «» মঠবাড়িয়ায় করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় দুস্থ্যদের মধ্যে মানবিক সহায়তা প্রদান «» মঠবাড়িয়ায় ফসলের ক্ষেতে সৌর শক্তি চালিত আলোক ফাঁদ প্রদর্শণী «» কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশন কী? «» সামাজিক দূরত্ব বজায়কালীন মানসিক স্বাস্থ্য «» করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মঠবাড়িয়ার এক যুবকের পরামর্শ «» মঠবাড়িয়ায় জেএসসিতে ৭৪ শিক্ষার্থীর বৃত্তি লাভ : শীর্ষে কেএম লতীফ ইনস্টিটিউশন «» মঠবাড়িয়ায় তিন মাদকসেবীকে জরিমানা

ধূমপানের চেয়েও বেশি ক্ষতিকর ডিম!

মঠবাড়িয়া প্রতিদিন ডেস্ক : আমরা প্রতিদিনই কম-বেশি ডিম খাই। সকালের নাস্তা বা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগেও ডিম খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকের। তবে আতঙ্কের বিষয় হচ্ছে- এই ডিম নাকি ডেকে আনছে ক্ষতি। বিজ্ঞানীরা তো তাই বলছেন। গবেষণা করেই তারা এমন তথ্য সামনে এনেছেন।
বিজ্ঞানীরা জানান, দীর্ঘদিন গবেষণা করে তারা এমন সিদ্ধান্তে এসেছেন। তারা বলছেন, প্রতিদিন ডিম খাওয়া সিগারেটের চেয়েও বেশি ক্ষতিকর! তাদের তথ্য অনুযায়ী, বেশি ডিম খেলে শরীরে কোলেস্টরেলের মাত্রা বেড়ে যায়। যা হৃদরোগের কারণ হতে পারে।
শুধু তা-ই নয়, ডিম খাওয়ার ফলে আর্থ্রাইটিসের আশঙ্কাও দেখা যায় বেশি। তবে অনেকেই বলেন, ডিমের সাদা অংশ উপকারী, আর কুসুম খাওয়া ভালো নয়। তাদের এ তথ্যকে একেবারে উড়িয়ে দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে, পুরো ডিম অতিরিক্ত খাওয়াই উচিত নয়।
এমনকি বিজ্ঞানীরা বলছেন, কাঁচা ডিমের তুলনায় ওমলেট, সেদ্ধ কিংবা পোচ খেলে ক্ষতির আশঙ্কা বেড়ে যায়। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন বিজ্ঞানী ভয়ংকর এমন তথ্য সামনে নিয়ে এসেছেন। অথচ এতদিন চিকিৎসকরা বলেছেন, প্রতিদিন অন্তত একটি ডিম খেলে শরীর ভালো থাকবে।
তাহলে এখন ভোক্তারা কী করবে? চিকিৎসকের পরামর্শ মানবে না-কি বিজ্ঞানীদের গবেষণা অনুসরণ করবে? সবাই হয়তো এমন গবেষণায় কর্ণপাত করবেন না। তারা আগের মতোই ডিম খেয়ে যাবেন। শুধু অতিমাত্রায় স্বাস্থ্য সচেতনরাই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে পারেন। সূত্র : জাগো নিউজ।

0Shares

Comments

comments