,

শিরোনাম :

দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর তিন কিলোমিটার

মঠবাড়িয়া প্রতিদিন ডেস্ক : প্রমত্তা পদ্মার বুকে বসল পদ্মা সেতুর ২০তম স্প্যান। মঙ্গলবার সেতুর মাওয়া প্রান্তে দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে ১৮ ও ১৯ নম্বর পিয়ারের ওপর ২০তম স্প্যান ‘৩-এফ’ বাসানো হয়েছে। এতে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে সেতুর দৃশ্যমান হয়েছে তিন কিলোমিটার। পদ্মা সেতু প্রকল্পের সহকারী পরিচালক হুমায়ুন কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এটি নিয়ে ডিসেম্বর মাসে মোট তিনটি স্প্যান বসানো হলো।
এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মাওয়া কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যরে ‘৩-এফ’ স্প্যানটি ৩ হাজার ৬০০ টন ধারণ ক্ষমতার ভাসমান ক্রেন ‘তিয়ান-ই’ বহন করে পিয়ার ১৮-১৯ এর সামনে নিয়ে আসে। এরপর ধীরে ধীরে স্প্যানটি পিয়ারের ওপর স্থাপন শুরু হয়। পরে দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে স্প্যানটি বসানো সম্পন্ন হয়। মোট ৪১টির মধ্যে ২০টি স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে স্পর্শ করল প্রায় অর্ধেক সেতু দৃশ্যমান করার মাইল ফলক।
নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আবদুল কাদের বলেন, এখন প্রতিমাসে তিনটি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা আছে। এ শিডিউল মেনে স্প্যান বসাতে পারলে আগামী জুলাই নাগাদ ৪১টি স্প্যান বসানো শেষ হবে। পদ্মা সেতুর মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে চীন থেকে মাওয়ায় এসেছে ৩৩টি। এর মধ্যে ২০টি স্প্যান স্থায়ীভাবে বসে গেছে। আরও দুটি স্প্যান চীন থেকে বাংলাদেশের পথে রওনা হয়েছে। ৬টি স্প্যান তৈরির কাজ চীনে চলমান আছে। আগামী মার্চের মধ্যে সব স্প্যান দেশে চলে আসবে বলে জানান তিনি।
৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে।

0Shares

Comments

comments