,

শিরোনাম :
«» মঠবাড়িয়ায় রাস্তার পাশে লাইসেন্স ছাড়া পেট্রল ও এলপি গ্যাস বিক্রি, ব্যবসায়ীর জরিমানা «» মঠবাড়িয়ায় অবরোধকালীন সময় সংশোধনের দাবিতে জেলেদের মানববন্ধন «» মঠবাড়িয়ায় জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ শুরু «» মঠবাড়িয়ায় নুসরাত হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন «» মঠবাড়িয়ায় ক্যান্সার আক্রান্ত জান্নাতিকে অর্থ সহায়তা প্রদান «» মঠবাড়িয়ায় বৈশাখী মেলায় নিখোঁজ হওয়া স্কুল ছাত্র নয়নের ৮ দিনেও সন্ধান মেলেনি «» মঠবাড়িয়ায় ইভটেজিং এর দায়ে দপ্তরীর অর্থদন্ড «» নুসরাত হত্যার সর্বোচ্চ বিচার চেয়ে মঠবাড়িয়ায় মানববন্ধন «» আ: ছত্তার আকনের ইন্তেকাল «» মঠবাড়িয়ায় মৎস্য অফিসের ক্ষেত্র সহকারীর অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

চরখালী-মঠবাড়িয়া-পাথরঘাটা সড়ক উন্নয়ন ও প্রশস্তকরণ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন

ডেস্ক রিপোর্ট : জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় পিরোজপুরের চরখালী-তুষখালী-মঠবাড়িয়া-পাথরঘাটা সড়কটি উন্নয়ন ও প্রশস্তকরণের মাধ্যমে বরগুনা জেলার পাথরঘাটা ও পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়ার সঙ্গে বিভাগীয় শহর বরিশালের নিরাপদ ও নিরবচ্ছিন্ন সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের লক্ষ্যে ‘চরখালী-তুষখালী-মঠবাড়িয়া-পাথরঘাটা সড়ক উন্নয়ন ও প্রশস্তকরণ (জেড-৮৭০১)’ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ১০৪ দশমিক ৭৭ কোটি টাকা। এটি সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের আওতায় সড়ক ও জনপথ অধিদফতর কর্তৃক বাস্তবায়িত হবে। পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া ও মঠবাড়িয়া উপজেলা এবং বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলা এর প্রকল্প এলাকা।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার একনেকের সভায় মোট ৩০ হাজার ৩৪৩ কোটি টাকা ব্যয়ে মোট ১২টি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এই ব্যয়ের মধ্যে রয়েছে জিওবি ২৫ হাজার ৯০৪ কোটি টাকা, সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ৩৩ কোটি  এবং প্রকল্প সাহায্য ৪ হাজার ৪০৪ কোটি টাকা। মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেকের সভায় এসব প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সভা শেষে অনুমোদন পাওয়া প্রকল্পগুলো নিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

চরখালী-তুষখালী-মঠবাড়িয়া-পাথরঘাটা সড়কটি উন্নয়ন ও প্রশস্তকরণ প্রকল্পটি অনুমোদনের খবরে মঠবাড়িয়াসহ সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোর বাসিন্দাদের মধ্যে উল্লাসের খবর পাওয়া গেছে। কারণ সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল এই সড়কটির উন্নয়ন।

সূত্র : জাগোনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম।

Comments

comments