,

শিরোনাম :

একাদশ সংসদ নির্বাচনে সেই সুধীর বাবুর নির্বাচন করা হলোনা

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুুর-৩ মঠবাড়িয়া একক আসনে আলোচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রবীণ নির্বাচন পাগল সুধীর রঞ্জন বিশ্বাসের এবার আর ভোটের লড়াইয়ে টিকে থাকা হলোনা। এর আগে টানা পাঁচবার তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে ভোট যুদ্ধে নামেন। তবে তিনি প্রতিটি নির্বাচনে নিজের একটি ভোট ছাড়া আর কোন ভোট পাননি। তাই এলাকায় তিনি এক ভোটের এমপি সুধীর বলে রসালো আলোচনায় আছেন।

এবার একাদশ সংসদ নির্বাচনে তিনি ষষ্ঠ বারের মতো স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে এলাকায় তুমুল আলোচনার সৃষ্টি করেন। পিরোজপুর-৩ আসনের ১৩ জনের মনোনয়নপত্র বাছাই কার্যক্রম শেষে আলোচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী সুধীর রঞ্জন বিশ^াসসহ ৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়েছে। জেলা রিটার্ণিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
মনোনয়নপত্রে প্রয়োজনীয় তথ্য না থাকা ও সমর্থকদের তালিকা না থাকায় মঠবাড়িয়া আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সুধীর রঞ্জন বিশ^াসের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এছাড়া এ একক আসনে আরও দুইজন স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডা. এম নজরুল ইসলাম, মো. আবু তারেক মৃধার মনোনয়ন পত্রের সাথে সমর্থকদের স্বাক্ষর সঠিক না থাকায় তাদের মনোনয়ন পত্র বাতিল করেন জেলা রিটার্নিং অফিসার।
উল্লেখ্য পিরোজপুর-৩ মঠবাড়িয়া আসনে টানা ষষ্ঠ বারের মতোন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন সুধীর রঞ্জন বিশ^াস। এর আগে প্রতিটি নির্বাচনে তিনি নিজের একটা ভোট ছাড়া আর কারও ভোট পাননি। প্রতিবারই তিনি জামানত হারিয়েছেন। টানা পাঁচবার নির্বাচনে দাড়িয়ে প্রতিবারই একই ফল। প্রতিটি নির্বাচনে ভোট পাগল হিসেবে আলোচিত প্রার্থী তিনি। এবার প্রার্থী হয়ে আবার নির্বাচনী মাঠে আলোচিত এক ভোটের প্রার্থী বৃদ্ধ সুধীর রঞ্জন বিশ^াস। তবে এবার তার মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না।
মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী সুধীর রঞ্জন বিশ^াস প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমার দুর্ভাগ্য এবার আর ভোটে প্রার্থী হতে পারলাম না। তবে বেঁচে থাকলে আগামী নির্বাচনে আবার প্রর্থী হবো।

 

Comments

comments